www.agribarta.com:: কৃষকের চোখে বাংলাদেশ

সরকারি পাটকল শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ শুরু মঙ্গলবার


 এগ্রিবার্তা ডেস্কঃ    ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, রবিবার, ১০:৪৫   কৃষি প্রতিষ্ঠান বিভাগ


বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশনের (বিজেএমসি) বন্ধ পাটকলের শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ কার্যক্রম আগামী মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হচ্ছে। রাজধানীর ডেমরার করিম জুটমিলে ওইদিন বেলা ১১টায় বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী পাওনা পরিশোধ কার্যক্রম আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা সৈকত চন্দ্র হালদার।

আজ রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তিনি জানান, ‘উদ্বোধন অনুষ্ঠানে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানও উপস্থিত থাকবেন। করিম জুটমিলের ৩০ শ্রমিকের হাতে চেক ও সঞ্চয়পত্র হস্তান্তরের মাধ্যমে পাওনা পরিশোধ কার্যক্রম শুরু হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে সব শ্রমিকের পাওয়া পরিশোধ করা হবে।’

চলতি মাস কিংবা আগামী মাসের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে পাওনা পরিশোধ কার্যক্রম সম্পন্ন হবে বলেও জানান জনসংযোগ কর্মকর্তা। লোকসান থেকে বাঁচতে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলোর ২৪ হাজার ৮৮৬ স্থায়ী শ্রমিককে গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের (স্বেচ্ছা অবসরে) মাধ্যমে অবসরে পাঠানো হচ্ছে বলে গত ২৮ জুন ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানান বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী।

১ জুলাই থেকে বিজেএমসির ২৫টি পাটকল বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। পরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধ এবং শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ নিয়ে সভার পর গত ২ জুলাই বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, বন্ধ ঘোষণা করা রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের প্রতি শ্রমিক গড়ে ১৩ লাখ ৮৬ হাজার এবং সর্বোচ্চ ৫৪ লাখ টাকা পর্যন্ত পাবেন। সরকার তাদের পাওনার অর্ধেক নগদে পরিশোধ ও বাকি অর্ধেক টাকার সঞ্চয়পত্র দেব।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, পাটপণ্যের উৎপাদন ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও পুনর্বিন্যাস করে বিজেএমসির বন্ধ মিলগুলো জরুরি ভিত্তিতে ফের চালু করা হবে। এজন্য মিলগুলোকে সরকারি নিয়ন্ত্রণে পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি), যৌথ উদ্যোগ জিটুজি বা লিজ মডেলে পরিচালনার মাধ্যমে যত দ্রুত সম্ভব আবার উৎপাদনে ফিরিয়ে আনার কার্যক্রম চলমান।




  এ বিভাগের অন্যান্য