www.agribarta.com:: কৃষকের চোখে বাংলাদেশ

৬০ একর জমির ভুট্টা ও ফসল নষ্ট করলো দুর্বৃত্তরা


 এস এ    ৮ মে ২০২১, শনিবার, ১২:৫০   সমকালীন কৃষি  বিভাগ


ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গি উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের রত্নাই বগুলাবাড়ি গ্রামে শতাধিক কৃষকের প্রায় ৬০ একর জমির ভুট্টা ক্ষেত ও ফসল নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় জড়িদের চিহ্নিত করতে ৫ সদস্য বিশিষ্ট্য একটি তদন্ত টিম গঠন করেছে উপজেলা প্রশাসন।

জানা গেছে, ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা ঋণ করে ও অন্যের জমি বর্গা নিয়ে ভুট্টা আবাদ করেছিলেন। গত কয়েকদিন ধরে লোক চক্ষুর আড়ালে প্রায় শতাধিক কৃষকের ৬০ একর আবাদি জমির ভুট্টা ক্ষেত নষ্ট করতে থাকে দুর্বৃত্তরা। ভুট্টা গাছের পাতা ছিড়ে ও কাচাঁ ভুট্টা ছিড়ে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ১৫ দিন ধরে এমন চলতে থাকায় পরবর্তীতে উপায় না পেয়ে উপজেলা প্রশাসনকে লিখিতভাবে অভিযোগ দেন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা। পরে কৃষকদের অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা কৃষি অফিসার ভুট্টার ক্ষেত পরিদর্শনে যান।

কৃষক সাইফুল ইসলাম বলেন, ভুট্টা এখনো কাচাঁ আছে। এই অবস্থায় ভুট্টা গাছের পাতা ছিড়ে নিলে ভুট্টা আর বড় হবে না। এতে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হব। আমরা ঋণ করে এসব চাষাবাদ করেছি। পাশের গ্রামের মহিলারা দলবেধে এসে পাতা ছিড়ে নিয়ে যায় প্রতিদিন। তারা নারী তাই কিছু বললেই মামলার ভয় দেখায়। অনেক অসহায় হয়ে গিয়েছি আমরা।

কৃষানী রানী রায় বলেন, পাশের গ্রামের নারীরা আমাদের সাথে ইচ্ছা করে ঝগড়া লাগাচ্ছে। আর আমাদের উপর মামলা করার চেষ্টা করতেছে। সেজন্য তারা আসে আর জোর করে আমাদের ভুট্টা ক্ষেতের ভুট্টা নষ্ট করে আমাদেরকে হুমকি দিয়ে চলে যাচ্ছে। এখন প্রশাসন যা ব্যবস্থা নিবে, না হলে আমাদেরকে সব ছেড়ে ভারতে পালাতে হবে।

ঘটনাস্থল ভুট্টার ক্ষেত পরিদর্শন শেষে উপজেলা কৃষি অফিসার সুব্রত চন্দ্র রায় জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দেখলাম কৃষক ভালোই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কারণ ভুট্টার মোচা গুলো এখনো বড় ও পরিপক্ক হয় নাই। গাছের পাতা ছিড়ে ফেলায় ভুট্টার মোচা আর বড় হবে না। কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হবে অনেক বেশি। আমরা চেষ্টা করবো সরকারের পক্ষ থেকে কৃষকদের ভর্তুকি দেওয়ারও ব্যাবস্থা করার।

এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আসলাম জুয়েল ভুট্টা ক্ষেত পরিদর্শন শেষে জানান, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। কারা এর সাথে জড়িত তা উদঘাটনে তদন্ত টিম কাজ করবে। তদন্ত টিমকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে জরিতদের নাম জমা দিতে বলা হয়েছে। আমরা ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের পাশে আছি।




  এ বিভাগের অন্যান্য