www.agribarta.com:: কৃষকের চোখে বাংলাদেশ

খরার প্রভাবে আর্জেন্টিনায় গম আবাদ কমার আশঙ্কা


 এগ্রিবার্তা ডেস্ক    ২০ জুন ২০২২, সোমবার, ৯:০৬   কৃষি অর্থনীতি  বিভাগ


গত বছর থেকেই ভয়াবহ খরায় বিপর্যস্ত আর্জেন্টিনার কৃষি খাত। প্রধান প্রধান উৎপাদন অঞ্চলে পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ২০২২-২৩ বিপণন মৌসুমে দেশটিতে গমের আবাদ কমে যেতে পারে। এমন পূর্বাভাস দিয়েছে বুয়েন্স আয়ার্স গ্রেইনস এক্সচেঞ্জ। এর আগের দুই মৌসুমেও আবাদ নিম্নমুখী ছিল।

তথ্য বলছে, আর্জেন্টিনা বিশ্বের শীর্ষ গম রফতানিকারক। এছাড়া সয়াবিন তেল ও সয়ামিল রফতানিতেও নেতৃস্থানীয় লাতিন আমেরিকার এ দেশ। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পর থেকে খাদ্যশস্য সরবরাহে দেশটির ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ কৃষ্ণ সাগরীয় বন্দরগুলো অবরুদ্ধ থাকায় তলানিতে ইউক্রেনের খাদ্যশস্য রফতানি। অন্যদিকে পশ্চিমা দেশগুলোর একের পর এক নিষেধাজ্ঞার কারণে প্রতিবন্ধকতার মধ্যে রাশিয়ার রফতানিও।

কিন্তু গম আবাদের ক্ষেত্রে খুব খারাপ সময় পার করছে আর্জেন্টিনার কৃষক। মাটিতে আর্দ্রতার পরিমাণ কম থাকায় উপযুক্ত সময়ে আবাদ সম্পন্ন করা যাচ্ছে না। তার ওপর সারের আকাশছোঁয়া দাম পরিস্থিতিতে আরো জটিল করে তুলেছে। এসব চ্যালেঞ্জ উৎপাদন বৃদ্ধির সক্ষমতায় বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এক্সচেঞ্জের দেয়া তথ্যমতে, আর্জেন্টিনায় গম আবাদি জমির পরিমাণ ধরা হয়েছে ৬৪ লাখ হেক্টর। এক মাস আগে দেয়া পূর্বাভাসে জমির পরিমাণ ধরা হয়েছিল ৬৬ লাখ হেক্টর। এ নিয়ে টানা তিন মৌসুমে দেশটিতে গমের আবাদ কমতে যাচ্ছে।

বুয়েন্স আয়ার্স গ্রেইনস একচেঞ্জ কর্তৃক প্রকাশিত সাপ্তাহিক খাদ্যশস্যবিষয়ক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যদি শিগগিরই খরা পরিস্থিতির উন্নতি না হয়, তবে আবাদ পূর্বাভাস আরো কমানো হতে পারে। কারণ প্রধান কৃষি উৎপাদন অঞ্চলগুলোয় আবাদের সময় প্রায় শেষের দিকে।

 




  এ বিভাগের অন্যান্য