www.agribarta.com:: কৃষকের চোখে বাংলাদেশ

নোবিপ্রবিতে দ্বিতীয় জাতীয় খাদ্য প্রযুক্তি ও পুষ্টি বিজ্ঞান শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত


 নোবিপ্রবি প্রতিনিধি    ২২ জুন ২০২২, বুধবার, ৪:৫১   ক্যাম্পাস বিভাগ


নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) দ্বিতীয় জাতীয় খাদ্য প্রযুক্তি ও পুষ্টি বিজ্ঞান শীর্ষক সেমিনার ২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে ফুড টেকনোলজি অ্যান্ড নিউট্রিশন সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) মৌমিতা দের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নোবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম বলেন, ‘পুষ্টিখাতে গবেষণার মানউন্নয়নে বাজেট আরও বৃদ্ধি করতে হবে। স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকার জন্য সুষম খাদ্যের প্রয়োজন। পুষ্টিকর খাবার গ্রহণের মাধ্যমে আমাদের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে হবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবদুল বাকী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন, অধ্যাপক ড. মো. আমিনুল হক ভূঁইয়া, ফুড টেকনোলজি অ্যান্ড নিউট্রিশন সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) মৌমিতা দে, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. শিরীন নিগারসহ প্রমুখ।

দ্বিতীয় বিজ্ঞান ভিত্তিক সেশনে বাংলাদেশের বর্তমান জনস্বাস্থ্য পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (মাভাবিপ্রবি) ফুড টেকনোলজি অ্যান্ড নিউট্রিশন সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. এ কে ওবায়দুল হক, অধ্যাপক মো. নিজামুল হক ভূঁইয়া এবং মো. রাহানুর আলম।

মা ও শিশুর সুস্বাস্থ্য, খাদ্যাভাস পরিবর্তন, খাদ্য নিরাপত্তা ও জনস্বাস্থ্য বিষয়ক আলোচনা উক্ত সেমিনারের মূল প্রতিপাদ্য। বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে শিশু এবং নারীরা বিভিন্ন ধরনের অপুষ্টিজনিত সমস্যায় ভোগেন। যার মধ্যে জন্মের সময় ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে কম থাকা, কৃশকায়, খর্বাকৃতি এবং বিভিন্ন অনুপুষ্টির অভাব উল্লেখযোগ্য। এছাড়া খাদ্যে ভেজাল, কীটনাশকের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার, খাদ্য সংরক্ষণ পদ্ধতির অনিয়মিত প্রয়োগ আমাদের স্বাস্থ্য এবং পুষ্টির অভাব আরো বহুগুনে বাড়িয়ে দেয় যা কোনভাবেই কাম্য নয়। আলোচ্য সেমিনারের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীরা এই সকল বিষয়ে সম্যক ধারনা লাভ করে।

প্রসঙ্গত, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও এই সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। এর আগে, অংশগ্রহণকারীদের নিয়ে থেকে পোস্টার প্রেজেন্টেশনের আয়োজন করা হয় এবং সেরা তিনজন পোস্টার প্রেজেন্টেশনকারীকে সার্টিফিকেট ও পুরস্কার প্রদান করেন নোবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম।




  এ বিভাগের অন্যান্য