www.agribarta.com:: কৃষকের চোখে বাংলাদেশ

আমদানির খবরে মণপ্রতি পেঁয়াজের দাম কমলো ৪০০ টাকা


 এগ্রিবার্তা ডেস্ক    ৬ জুলাই ২০২২, বুধবার, ৯:২৬   পোল্ট্রি বিভাগ


ফরিদপুরে একদিনের ব্যবধানে মণপ্রতি পেঁয়াজের দাম ৪০০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। জেলার বিভিন্ন বাজারে সোমবারও (৪ জুলাই) মণপ্রতি ১৬০০ থেকে ১৭০০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে পেঁয়াজ। অথচ মঙ্গলবার (৫ জুলাই) একই মানের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে সর্বোচ্চ ১২০০ টাকা মণ।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানির খবরে দেশের বাজারে দাম কমে গেছে। হঠাৎ পেঁয়াজের দাম কমায় চাষি ও ব্যবসায়ীরা ক্ষতির মুখে পড়েছেন।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ফরিদপুরের কানাইপুর, সালথা, নগরকান্দা, মধুখালী ও বোয়ালমারীর পেঁয়াজের আড়তে ঘুরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

ব্যবসায়ীরা জানান, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন বাজারে বিক্রির জন্য সোমবার পর্যন্ত কৃষকের কাছ থেকে মণপ্রতি ১৬০০ থেকে ১৭০০ টাকায় পেঁয়াজ কিনেছেন তারা। তবে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানির খবরে বাজারে দেশি পেঁয়াজের আমদানিও বেড়েছে। সবমিলিয়ে মণপ্রতি ৪০০ টাকা পর্যন্ত লোকসান গুনতে হচ্ছে।

কানাইপুর বাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মহসিন জাগো নিউজকে বলেন, ‘এই তো গেলো সোমবার পর্যন্ত পেঁয়াজ কিনেছি ১৭০০ টাকা মণ দরে। মঙ্গলবার দর কমে ১২০০ টাকায় নেমেছে। দাম আরও কমতেও পারে।’

বোয়ালমারীর সহস্রাইল বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করতে আসা অনুপ বালা জাগো নিউজকে বলেন, ‘প্রতিকেজি পেঁয়াজ উৎপাদনে খরচ হয়েছে সর্বনিম্ন ৩০-৩৫ টাকা। উৎপাদন ব্যয়ের হিসাব করলে এখন খরচই উঠছে না। ১২০০ টাকা মণ দরে বিক্রি করলে চাষিদের লোকসান হয়। তারপরও বিক্রি করে দিচ্ছি। সামনে যদি আরও দাম কমে যায়।’

মধুখালীর বড় পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মো. আলম জাগো নিউজকে বলেন, ‘হঠাৎ ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানির খবরে দরপতন হয়েছে। এতে ব্যবসায়ী ও চাষিরা বড় লোকসানের মুখে পড়েছে।’

কানাইপুর বাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী ও ইউপি চেয়ারম্যান ফকির মো. বেলায়েত হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ‘পেঁয়াজ আমদানি আরও কিছুদিন পরে করলে ভালো হতো। হঠাৎ এমন ঘোষণায় পেঁয়াজ ব্যবসায়ী ও চাষি উভয়ই একসঙ্গে ক্ষতির মুখে পড়লেন।’

ফরিদপুরের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড. হযরত আলী জাগো নিউজকে বলেন, ‘পেঁয়াজ উৎপাদনের দিক দিয়ে ফরিদপুর অন্যতম একটি জেলা। এ জেলায় এবার ৪১ হাজার হেক্টর জমিতে প্রায় ছয় লাখ টন পেঁয়াজ চাষ করেছেন চাষিরা, যা দেশের মোট উৎপাদনের ২০ শতাংশ। কৃষি বিভাগ চাষিদের ভালো ফলন ও বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ ও সহযোগিতা করে থাকে।’




  এ বিভাগের অন্যান্য