www.agribarta.com:: কৃষকের চোখে বাংলাদেশ

পঞ্চগড়ে নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় মৃত বেড়ে ৬৮


 এগ্রিবার্তা ডেস্ক    ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার, ৭:৪৮   কৃষি অর্থনীতি  বিভাগ


পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় আরো ১৮ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৮। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছেন পাঁচজন। তাদের উদ্ধারে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ফায়ার সার্ভিসের রংপুর, রাজশাহী ও কুড়িগ্রামের তিনটি ডুবুরি দল অভিযান অব্যাহত রেখেছে। ঘটনার তদন্ত কমিটির প্রধান পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) দীপঙ্কর রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার গভীর রাত থেকে গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত উদ্ধার করা হয়েছে শৈলবালা (৫১), সনেকা রানী (৫৫), হরিকিশোর (৪৫), শিল্টু বর্মণ (৩২), মহেন চন্দ্র (৩০), ভূমিকা রায় পূজা (১৫), আঁখি রানী, (১৫), সুমি রানী (৩৮), পলাশ চন্দ্র (১৫), ধৃতি রানী (১০), সজিব রায় (১০), পুতুল (১৫), কবিতা (৯), রত্না রানী (৪০), মালিন্দ নাথ বর্মণ (৫৬), মণিভূষণ বর্মণ (৪৬), মুনিকা রানী (৩৬) ও দোলা রানীর (৫) মরদেহ। পরে সেগুলো সত্কারের জন্য স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে উদ্ধার হয়েছে ২১ শিশু, ৩০ নারী ও ১৭ পুরুষের মরদেহ। তাদের মধ্যে ঘটনার দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর আটজনের মৃত্যু হয়েছে। বাকিদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে ঘটনাস্থল মাড়েয়া আউলিয়ার ঘাট, দেবীগঞ্জ করতোয়া সেতু ও দিনাজপুরের খানসামা সেতু এলাকা থেকে।

বোদা উপজেলার বড়শশী ইউনিয়নের বদেশ্বরী মন্দিরে মহালয়া উৎসবে যোগ দিতে গত রোববার দুপুরে আউলিয়ার ঘাট এলাকায় করতোয়ার বুকে ডুবে যায় পুণ্যার্থীদের বহন করা একটি নৌকা। নারী ও শিশুদের অনেকেই স্রোত ঠেলে তীরে আসতে পারেনি। ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী থাকার কারণেই এ নৌকাডুবি বলে জানান স্থানীয়রা। ৩০-৩৫ যাত্রী নিতে সক্ষম শ্যালো ইঞ্জিনচালিত নৌকাটিতে ছিলেন শতাধিক লোক।

এ ঘটনায় পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দীপঙ্কর রায়কে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে দীপঙ্কর রায় বলেন, অন্যান্য কাজের সঙ্গে তদন্তের কাজও চলছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই জেলা প্রশাসকের কাছে প্রতিবেদন জমা দিতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। নিখোঁজের সংখ্যা কমে যাওয়ার বিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রধান বলেন, প্রথমদিকে ৬৬ জন নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে স্বজনরা নাম তালিকাভুক্ত করেন। তবে একই ব্যক্তির একাধিক নাম থাকায় অনেকের নাম দুবার এসেছে। তবে শেষ সময় পর্যন্ত আর পাঁচজন নিখোঁজ রয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।




  এ বিভাগের অন্যান্য