www.agribarta.com:: কৃষকের চোখে বাংলাদেশ

হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজের কেজি ২৩ টাকা


 এগ্রিবার্তা ডেস্ক    ১৯ নভেম্বর ২০২২, শনিবার, ৭:৩৮   ক্যাম্পাস বিভাগ


বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের আমদানি কমলেও দেশের বাজারে চাহিদা কমায় একদিনের ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে আবারো এর দাম ২৩ টাকায় নেমেছে। একদিন আগে বন্দরে প্রতি কেজি ইন্দোর জাতের পেঁয়াজ প্রকারভেদে ২৫-২৮ টাকা দরে বিক্রি হলেও বর্তমানে ২৩-২৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দাম কমায় খুশি বন্দরে পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকারসহ নিম্ন আয়ের মানুষ।

হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকার আব্দুর রহমান বলেন, গত সপ্তাহে আমদানি যেমন বাড়তি ছিল, তেমনি দাম কমতির দিকে ছিল। কিন্তু এ সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন হঠাৎ পেঁয়াজের দাম আবারো বেড়েছিল। অবশ্য দুদিন পর সেই দাম আবারো কমতে শুরু করে। কমতে কমতে গত সপ্তাহে যেমন ২৩ টাকায় পেঁয়াজের দাম নেমেছিল, বর্তমানে আবারো সেই দামে গিয়ে ঠেকেছে।

তিনি আরো বলেন, আমদানীকৃত ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বাড়ার কারণে এবং দেশীয় নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসায় মোকামে চাহিদা কমে গিয়েছিল। বর্তমানে আমদানীকৃত পেঁয়াজের দাম কমায় মোকামে চাহিদা কিছুটা বেড়েছে, আমরা বন্দর থেকে কিনে মোকামে পাঠাচ্ছি। দাম কমের কারণে আমাদের পুঁজি কম লাগছে। এতে কিনতে সুবিধা হচ্ছে।

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক হারুন উর রশীদ বলেন, দেশের বাজারে পেঁয়াজের চাহিদা মেটাতে বন্দর দিয়ে আমদানি অব্যাহত রেখেছেন বন্দরের আমদানিকারকরা। সম্প্রতি ভারতে নতুন করে ইন্দোর ও নাসিক জাতের পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। এতে সরবরাহ বাড়ায় ভারতের বাজারেই পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমতির দিকে। এছাড়া বর্তমানে বন্দর দিয়ে মৌসুমের শেষ পর্যায়ের পুরনো পেঁয়াজগুলো আমদানি হচ্ছে, যার অধিকাংশ ছাল ওঠা, যার কারণে এসব পেঁয়াজের দাম কিছুটা কম। সেই সঙ্গে দেশের বাজারে দেশীয় নতুন পাতা পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। ফলে দেশীয় পেঁয়াজের দাম কমতির দিকে। এতে দেশের বাজারে আমদানীকৃত ভারতীয় পেঁয়াজের চাহিদা কমার কারণেই দাম কমতে শুরু করেছে। এছাড়া নভেম্বরের শেষের দিকে মুড়িকাটা জাতের নতুন পেঁয়াজ উঠতে শুরু করবে। এ সময় দাম আরো কমবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

হিলি স্থলবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন বলেন, বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত থাকলেও আমদানির পরিমাণ কমতে শুরু করেছে। বন্দর দিয়ে বুধবার যেখানে ১৮টি ট্রাকে ৫১৮ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছিল, সেখানে বৃহস্পতিবার বন্দর দিয়ে মাত্র আটটি ট্রাকে ২৩৮ টন আমদানি হয়েছে। গতকাল সাপ্তাহিক ছুটির কারণে বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ ছিল। আজ পুনরায় বন্দর দিয়ে আমদানি শুরু হবে।




  এ বিভাগের অন্যান্য